অনিমেষ বৈশ্যর ‘নুন-মরিচের জীবন’ ফড়িং-এর ডানায় অনন্তের রোদ্দুর দর্শন।– পড়লেন সুপ্রিয় ঘোষ

গ্রন্থ আলোচনা। লিখছেন : সুপ্রিয় ঘোষ।

নুন মরিচের জীবন । অনিমেষ বৈশ্য। খোয়াবনামা। মুদ্রিত মূল্য : ১৫০ টাকা।

স্মৃতির ঝাপটা হাওয়া, গ্রাম-বাংলার মাটির সোঁদা গন্ধ, পৃথিবী রূপ ‘নাইট্যশালার’ নানান কুশীলব এবং মহাকালের ধুলোবালির ইতিকথা–এসব নিয়েই অনিমেষ বৈশ্যর বই ‘নুন-মরিচের জীবন’। বিভিন্ন সময়ে ফেসবুকে লেখা ছোটো ছোটো ৩৬ টি গদ্যের সমন্বয় ৮৬ পৃষ্ঠার এই গ্রন্থ।
অনিমেষ বৈশ্য খড়দহের পাতুলিয়ার বাসিন্দা। পেশায় সাংবাদিক। যাপনসঙ্গী রবিঠাকুরের গান, বই, ফুটবল, সাদা-কালো সিনেমা আর নুন-ঝাল আড্ডা। ‘একবুক ফেরারি স্মৃতি আর আবলুসি ভাবনা’র ফসল এই লেখাগুলি। যেখানে তিনি প্রাণটাকে গলিয়ে কথার ছাঁচে ঢেলে দিয়েছেন। ‘ভাঁড়ের চায়ে লেড়ো বিস্কুট ডুবিয়ে ‘দেখতে চেয়েছেন ‘অনন্ত লহরী’।

‘হালায় কইছে পুঙ্গির, আনন্দের আর সীমা নাই। ‘অথবা ‘ব্যাতাইয়া মাইগ্গার ছাল তুইলা দিমু। ‘কিম্বা’থু ফালাইয়া’–এসমস্ত বাঙাল লব্জে কাঠবাঙাল লেখকের লেখাগুলি ম-ম করছে। বাঙাল পিতামহ, পণ্ডিত স্যার, কমলদা–এরূপ নানান চরিত্রের অনুষঙ্গে উঠে এসেছে ওপার বাংলার স্মৃতি আর বাইক্য সুধা।

ফিরতি, বাসন্তী পূর্ণিমার রং, এক এক্কে দুই, হিমফুল, সেভেন্টি থ্রি নট-আউট, স্পেস সায়েন্স, নিবারণ বাড়ি আছো?, নিছক স্বপ্ন নয়, বিশ্বাসে মিলায়- প্রভৃতির মতো প্রায় সমস্ত লেখাই একরাশ মুগ্ধতা নিয়ে মলাটবন্দী এগ্রন্থে। যেখানে আপন মনের টুকরো কুড়িয়ে পাবেন উদাসীন পাঠকও।

টিং টিং সাইকেলের ঘণ্টি – খিল খিল আকাশ – মাটির বজ্জাত গন্ধ -হারিয়ে ফেলা মানুষ – না ফোটা সজনে – এসব নিয়েই এএক আশ্চর্য রোজনামচা। বহমান জীবনের এক সোনালি দিগর। শব্দেরা যেখানে মায়ামৃগ। পড়লেই মন কেমন করে। হৃদয়ে আনন্দের আবেশ লাগে। রাশি রাশি ভালোবাসা উড়তে থাকে শরবনের মাথায়।

লেখাগুলিকে উপভোগ্য করেছে সুব্রত রায়ের আঁকা। অনুভবী প্রচ্ছদ করেছেন লেখক পুত্র অগ্নিভ বৈশ্য। সংকলন ও সম্পাদনার দায়িত্ব পালন করেছেন মনীষা মুখোপাধ্যায়। এরা প্রত্যেকেই কৃতিত্ব প্রদর্শন করেছেন। প্রকাশক খোয়াবনামা। আমরা লেখকের পরবর্তী প্রকাশনার প্রতীক্ষায় রইলাম। কেননা অনিমেষ বৈশ্য যে মহা জীবনের ধারাবিবরণী শুরু করেছেন তা অনন্তের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *